বুধবার, ২৯ মার্চ, ২০২৩  |   ২৫ °সে

প্রকাশ : ১৩ মার্চ ২০২৩, ০০:০৬

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে আমরণ অনশনে ১৫ শিক্ষার্থী

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে আমরণ অনশনে ১৫ শিক্ষার্থী
অনলাইন ডেস্ক

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে (রাবি) শিক্ষার্থীদের সঙ্গে স্থানীয়দের সংঘর্ষের ঘটনায় সাতদফা দাবিতে আমরণ অনশন শুরু করেছেন ১৫ শিক্ষার্থী। রোববার (১২ মার্চ) সন্ধ্যা ৭টা থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের বাসভবনের সামনে তারা অনশন শুরু করেন।

অনশনকারী শিক্ষার্থীরা হলেন- ম্যানেজমেন্ট স্টাডিজ বিভাগের শিক্ষার্থী মেহেদী হাসান, সোহাইব খান ও ফয়সাল আহমেদ, দর্শন বিভাগের শাহাদাৎ হোসেন ও রাবেয়া মুহিব, হিসাববিজ্ঞান ও তথ্য ব্যবস্থাপনা বিভাগের রিমি আক্তার, রাবিয়া জান্নাত রাইসা এবং মনোবিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থী জান্নাত হাওলাদার। বাকিরা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষার্থী।

এসময় অনশনরত শিক্ষার্থীরা সাত দফা দাবি জানান। দাবি পূরণ না হওয়া পর্যন্ত তারা অনশন করবেন তারা। দাবিগুলো হলো-

১. সংঘর্ষের ঘটনার জন্য প্রক্টরের পদত্যাগ ও প্রশাসনের জবাবদিহি করতে হবে।

২. ঘটনায় সঙ্গে জড়িতদের শনাক্ত করে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে গ্রেফতার করতে হবে।

৩. আহত শিক্ষার্থীদের চিকিৎসা ভার প্রশাসনকে বহন করতে হবে।

৪. বিশ্ববিদ্যালয়কে শতভাগ আবাসিক করতে হবে। এ বিষয়ে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে সিদ্ধান্ত জানাতে হবে

৫. পাসকার্ড ব্যাতীত ক্যাম্পাসে বহিরাগতদের প্রবেশ নিষিদ্ধ করতে হবে।

৬. ক্যাম্পাসে রিকশা ভাড়া, ডায়নিং ও খাবার হোটেলগুলোর খাবারের দাম নির্ধারণ ও মান নিশ্চিতকরণ।

৭. রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় রেল স্টেশন পুণরায় চালু করতে হবে।

এ বিষয়ে অনশনরত হিসাব বিজ্ঞান ও তথ্য ব্যবস্থাপনা বিভাগের শিক্ষার্থী রাবিয়া জান্নাত রাইসা বলেন, আমাদের দাবি নিরাপদ ক্যাম্পাস। গতকাল যে ঘটনা ঘটেছে তার কোনো পদক্ষেপই প্রশাসন নেয়নি। আমরা এর বিচার চাই। আমাদের যে সাত দফা দাবি আছে সেটা অবিলম্বে প্রশাসনকে মেনে নিতে হবে।

দর্শন বিভাগের শিক্ষার্থী মুহিব বলেন, আমরা সাত দাবি নিয়ে এখানে অবস্থান নিয়েছি। প্রশাসনের মুখের কথায় আমরা আশ্বস্ত হতে চাই না। আমরা দাবির বাস্তবায়ন চাই। দাবিসমূহ মেনে নেওয়া না হলে অনশন চালিয়ে যাব।

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়