সোমবার, ১৫ জুলাই, ২০২৪  |   ২৮ °সে

প্রকাশ : ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২৩, ০৩:৩৭

ঢামেক হাসপাতালে প্রথম টেস্টটিউব বেবির জন্ম

ঢামেক হাসপাতালে প্রথম টেস্টটিউব বেবির জন্ম
অনলাইন ডেস্ক

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রথমবারের মত জন্ম হলো ‘টেস্টটিউব বেবি’র। জন্মের পর শিশুটি সুস্থ আছে।

বৃহস্পতিবার (১৪ সেপ্টেম্বর) রাতে ঢামেক হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল নাজমুল হক এসব তথ্য নিশ্চিত করেন।

তিনি জানান, আনুমানিক ৩ সপ্তাহ আগে শিশুটির জন্ম হয়েছে। অধ্যাপক ফাতেমা রহমানের তত্ত্বাবধানে শিশুটি চিকিৎসাধীন আছে। তবে শিশুটি সুস্থ আছে।

তিনি বলেন, সরকারি কোনো হাসপাতালে এটাই প্রথম টেস্টটিউব বেবির জন্ম হলো। এই বাচ্চার বিষয়ে পরবর্তিতে স্বাস্থ্যমন্ত্রী আনুষ্ঠানিকভাবে আপনাদের বিস্তারিত জানাবেন।

বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকরা জানান, বন্ধ্যা নারীর মা হওয়ার আধুনিক পদ্ধতি টেস্টটিউব বেবি। স্বাভাবিক প্রক্রিয়ায় সন্তান না হওয়ার কারণে অনেক স্বামী-স্ত্রী মানসিকভাবে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েন। অনেকে অনেকভাবে সন্তান জন্মদানের চেষ্টা করেন। বহু দম্পতি প্রতিবেশী দেশ ভারতে যান বন্ধ্যাত্বের চিকিৎসার জন্য। দেশে বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে বা ভারতে টেস্টটিউব শিশুর জন্য ব্যয় অনেক বেশি। কোনো নিম্নবিত্তের পক্ষে সেই ব্যয় বহন করা সম্ভব নয়। ঢাকা মেডিকেলের মতো সরকারি প্রতিষ্ঠানে এই সুযোগ তৈরি হওয়ায় অনেক নিম্নবিত্ত দম্পতিও নতুন করে সন্তান জন্ম দেওয়ার স্বপ্ন দেখতে শুরু করবেন।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের স্ত্রীরোগ ও প্রসূতিবিদ্যা বিভাগের অধ্যাপক রেজাউল করিম গণমাধ্যমকে বলেন, বাংলাদেশে প্রথম টেস্টটিউব শিশুর জন্ম হয় ২০০১ সালে একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে। এরপর একাধিক বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে এ ধরনের শিশুর জন্ম হয়েছে। সরকারি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালেই প্রথম এ ধরনের কোনো শিশুর জন্ম হলো।

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়